Monday, 03 August 2020

   03:08:16 PM

logo
সৎ মা কাটলো গলা, রক্ত দিয়ে বাঁচালো পুলিশ

6 months ago

রাঙ্গামাটিতে সাড়ে চার বছর বয়সী এক শিশুকে গলা কেটে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে শিশুটির সৎ মাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় গুরুতর আহত ওই শিশুটির জীবন বাঁচাতে রক্ত দিয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশের দুই সদস্য।

১২ জানুয়ারি ২০২০ খ্রিঃ রবিবার দুপুরে শহরের কোতোয়ালি থানাধীন ডিসি কার্যালয় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত শিশুটিকে উদ্ধার করে তাৎক্ষণিকভাবে রাঙ্গামাটি জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।সেখানে শিশুটির জীবন বাঁচাতে দ্রুত অস্ত্রোপচার করতে রক্তের প্রয়োজন পড়ে। তখন এগিয়ে আসেন রাঙ্গামাটি জেলা পুলিশের দুই সদস্য কনস্টেবল মোঃ শাকিল ও কনস্টেবল আল মাসুদ রাজু। শিশুটির জীবন রক্ষার্থে দুই ব্যাগ রক্ত দান করেন তারা।

আহত ওই শিশুটির মা ফারজানা আক্তারের ভাষ্য, তার স্বামীর প্রথম স্ত্রী কাউসার ফেরদৌস দুই সন্তান নিয়ে তার বাবার বাড়িতে থাকেন। আজ দুপুরে তার মেয়ে ফারজান আহম্মেদকে ঘরে ছবি আঁকতে দিয়ে কাপড় শুকাতে দেওয়ার জন্য বাসায় ছাদে যান। একপর্যায়ে তিনি তার ঘরের টয়লেট থেকে গোঙরানির শব্দ পান। তখন ঘরে এসে দেখেন, তার সতীন কাউসার ফেরদৌসের হাতে ফল কাটার ছুরি এবং সেটি দিয়ে আঘাত করতে তার দিকে তেড়ে আসছেন। এসময় তিনি চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এসে তার সতীনকে আটক করে। তখন টয়লেট থেকে গলাকাটা অবস্থায় গুরুতর আহত শিশু ফারজানকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়।

এদিকে হাসপাতালের সূত্রে জানা গেছে, শিশুটির গলার বেশ কিছু অংশ কেটে গেছে। অস্ত্রোপচারের পর উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ঘটনার পরই অভিযুক্ত কাউসার ফেরদৌসকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।